Sunday, August 14, 2022

নীলকুঠিতে নজর কাড়লেন মিথিলা-সৌরভ

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। সম্প্রতি কলকাতার আলোচিত ‘মন্টু পাইলট’ সিরিজের দ্বিতীয় সিজনে অভিনয় করেছেন তিনি। এতে তার সঙ্গে আছেন ওপার বাংলার অভিনেতা সৌরভ দাস। রোববার (১৭ এপ্রিল) প্রকাশিত ট্রেলারে নজর কেড়েছেন তারা।

২ মিনিট ৪৩ সেকেন্ডের ট্রেলারে দেখা যায়, এক নারীকে কোলে নিয়ে নীলকুঠি যৌনপল্লির দরজায় দাঁড়িয়ে সৌরভ। তাকে বলতে শোনা যাচ্ছে, ‘শ্মশানের রাস্তা খুঁজতে খুঁজতে এখানে চলে এলাম।’ সৌরভ যাকে কোলে করে নিয়ে আসে সে আর কেউ নয়, মিথিলা। তাকে জোর করে এনে যৌনপল্লিতে আটকে রাখা হয়। শারীরিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন মিথিলা। এরপর তার মানিয়ে নেওয়া, কান্না-সবই উঠে এসেছে ট্রেলারে। তবে শেষ পর্যন্ত গল্পের মোড় কোনদিকে যায়, সেটি স্পষ্ট নয়।

আগামী ২৯ এপ্রিল ওটিটি প্ল্যাটফর্ম হইচইতে প্রকাশ পাবে ‘মন্টু পাইলট’র দ্বিতীয় কিস্তি। এর আগের সিরিজটি নিয়ে বিতর্ক থাকলেও নতুন কিস্তি দেখার অপেক্ষায় আছেন দর্শকরা।

এই সিরিজটি নিয়ে খানিকটা বিতর্ক প্রচলিত থাকলেও মিথিলার কণ্ঠে শোনা গেছে ভিন্ন সুর। তিনি আগেই জানিয়েছেন, ‘আমি অন্তত এমন বলার কারণ খুঁজে পাইনি। সিরিজটি আলোচিত হতে পারে, কিন্তু সমালোচিত বা বিতর্কিত হওয়ার মতো কিছু চোখে পড়েনি। এই সিরিজের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত যৌনকর্মীদের জীবন, যন্ত্রণা, লড়াই দেখানো হয়েছে, যা দেখানো উচিত। তারা তো এই সমাজেরই বাসিন্দা। তাহলে অকারণে বিতর্ক ছড়াবে কেন?’

তার ভাষ্য, ‘গল্পটি শোনার পর আমার মধ্যে এক মুহূর্তের জন্য দ্বিধা বা জড়তা কাজ করেনি। এটি সমাজের এমন এক অবহেলিত গোষ্ঠীর গল্প, যাদের প্রতি মুহূর্তে আমরা সমাজচ্যুত করার চেষ্টা করি। সমাজের প্রতিটি পেশার মানুষের মতো তাদেরও অবদান আছে। যৌনকর্মীরা না থাকলে সমাজের নারীরা এত নিরাপদে থাকতে পারতেন না।’

Latest news

00

Related news