Thursday, August 18, 2022

পাপারাৎজির ‘অশ্লীল নজর’ থেকে বাঁচার জন্য যা করলেন সোনম

অনলাইন মাধ্যমের উপর অনেকটা রাগ ঝাড়লেন অভিনেত্রী সোনম কাপুর আহুজা। তিনি বলেছেন, নেট দুনিয়ার চরিত্র এখন ভীষণ অদ্ভুত, নারী শরীরকে কেবল কুৎসিত ভাবেই দেখা হয়। বিনোদন জগতে অভিনেত্রীরা আজও পণ্য। তাদের খোলামেলা ছবি যে ভাবে ভাইরাল হয়, সাধারণ ছবি বা কাজের পোস্ট তো তেমন নজর কাড়ে না।

আগস্ট মাসেই মা হতে চলেছেন সোনম। কিছু দিন আগে দাদা হওয়ার আনন্দের কথা সবার সঙ্গে শেয়ার করেছিলে অভিনেতা অনিল কাপুরও। এদিকে অন্তঃসত্ত্বা সোনমের মন ভাল নেই। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী সরাসরিই জানান, সাধারণ ছবি পোস্ট করলে আশানুরূপ প্রতিক্রিয়া পান না নেটমাধ্যমে। লাইক, মন্তব্যের বন্যা তখনই বয়, যখন একটু যৌন আবেদনমূলক ছবি পোস্ট করেন।

তিনি আরও বলেন, অভিনেত্রীদের অপমান করার জন্য পাপারাৎজি সারাক্ষণ তক্কে তক্কে রয়েছেন। ফোন ক্যামেরায় ছবি তোলার সময় তাদের শরীরের বিভিন্ন অঙ্গে ইচ্ছে করে জুম করে দেখানো হয়। গা থেকে পোশাক সরে যাওয়ার ছবি হরদম ভাইরাল হয়। সে নিয়ে কোনও প্রতিবাদ হয় না।

গত কয়েক মাসে ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্টের ক্ষেত্রে অনেকটাই সাবধানী হয়েছেন সোনম। বেশির ভাগ সময়ে তিনি পুরাতন ছবি পোস্ট করতেন। বাকি ছবিগুলিতে সোনম নিজের শারীরিক পরিবর্তন আড়াল করেছেন সুকৌশলে। কখনও বসা বা দাঁড়ানোর ভঙ্গিতে, কখনও আবার ঢলঢলের পোশাকের আড়ালে মাতৃত্বের চিহ্ন লুকিয়েছেন তিনি। কেন? অভিনেত্রীর দাবি, পাপারাৎজির ‘অশ্লীল নজর’ থেকে বাঁচার জন্যই তিনি এ পথে হেঁটেছেন।

সোনমের দুঃখ, তার কনিষ্ঠ সহকর্মীরা কেউ কেউ এখন আগুনের দিকেই ঝাঁপ দিতে ছুটছেন। তার কথায়, বেশি লাইক পাবেন বলে নায়িকারাও এখন প্লাস্টিক সার্জারি করিয়ে ঠোঁট পুরু করছেন, শরীর নিয়ে আরও কত কী-ই না কাটা ছেঁড়া করছেন। কিন্তু এতে তাদের দোষ দেখি না। নেটমাধ্যমে জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে এ ছাড়া আর কী-ই বা করার আছে?

স্বামী আনন্দ আহুজার সঙ্গে সোনম এখন দিল্লিতে। অনাগত সন্তানের জন্মের অপেক্ষায় দিন কাটছে দম্পতির। ২০১৯ সালে ‘দ্য জোয়া ফ্যাক্টর’ ছবিতে শেষ বার পর্দায় দেখা গিয়েছিল সোনমকে। তবে মা হওয়ার পরেই পুরোদমে কাজ শুরু করবেন অভিনেত্রী। তাকে দেখা যাবে রহস্য-রোমাঞ্চ ছবি ‘ব্লাইন্ড’-এ।

Latest news

00

Related news