Saturday, August 13, 2022

প্রসেনজিৎ ও তার বোন অভাবে চা বিক্রি, চালিয়েছেন ট্যাক্সিও

অকপটে অতীতের আর্থিক অনটনের কথা জানালেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের বোন পল্লবী। অভাবের সংসার চালাতে ভাই বোন বিক্রি করেছেন চা, এমনকি চালিয়েছেন ট্যাক্সিও।ভারতীয় বাংলা সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় ও সফল অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। অভিনয়ের শুরুর দিনগুলো থেকে সিনেমায় নায়ক প্রধান চরিত্রে দেখা গেলেও এখন তিনি অভিনয় করছেন নানা ধরনের ভিন্ন ভিন্ন চরিত্রে। আর তারই ধারাবাহিকতায় এখন তার নাম, যশ, খ্যাতি ও আকাশচুম্বী।

তবে যে মানুষটা আজ এতটা সফল তার অতীতেও ছিল আর্থিক কষ্ট। শুধু তাই নয়, ছোট বোন পল্লবী চট্টোপাধ্যায়কে বিয়ে দেয়া হয়েছিল খুব ছোট বয়সে। যদিও সেসব এখন শুধুই অতীত। কিন্তু পেছনে ফেলে আসা কষ্টের দিনগুলো আজও প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও তার পরিবার মনে রেখেছেন। আর সেই সব দিনের কথাই প্রসেনজিতের বোন পল্লবী বলেছেন ভারতীয় বাংলার বেসরকারি এক টেলিভিশনের শোতে।পল্লবী জানান সংসারে অভাবের কারণে খুব ছোট বয়সে তার বিয়ে দিয়ে দেয়া হয় মায়ের আপন মামাতো ভাইয়ের সঙ্গে। মাত্র ১৫-১৬ বছর বয়সে সন্তান হয়ে যায় তার। কারণ তার মায়ের চিন্তা ছিল মেয়েকে নিয়ে। মেয়ের যাতে কোনো কিছুর অভাব না হয়। বিয়ের পর সেখান থেকেই পল্লবী স্কুলে যেতেন, সেখানেই ক্লাসিক্যাল গান শিখেছেন বলে জানান তিনি।

পল্লবী জানান, এমন ও হয়েছিল যে তিনি চা বানিয়েছেন, এবং প্রসেনজিৎ সেই চা বিক্রি করেছেন। মাকে সংসার চালাতে সাহায্য করতেই ছোট অবস্থাতেই সেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। মল রোড, দমদমের ওখানে চা বিক্রি করেন তারা। পল্লবীর কথায়, ‘ওই যে টাকাটা এসেছিল, তখন মনে হচ্ছিল যেন এটাই আমাদের জীবনের বড় পাওনা।’ পুরো টাকাটা মায়ের হাতে তুলে দেন ছোট প্রসেনজিৎ ও পল্লবী। এমনকি ট্যাক্সিও চালিয়েছেন পল্লবী। কলকাতায় এসেছেন তখন প্রথমবার। হাতে কাজ নেই। তখন মনে হয়েছিল তিনি তো ট্যাক্সি চালাতে পারেন! পল্লবীর কথায়, ‘সেই সময় কেন এখনো মনে হয় আমি আমার নিজের টার্মসে বেঁচেছি। লড়াই করেছি নিজের জন্য।

মায়ের আপন মামাতো ভাইয়ের সঙ্গে মাত্র ১৩ বছর আগে বিয়ে হয়ে যায় পল্লবীর। সেই সময় প্রসেনজিতের মা অর্থাৎ বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের প্রথম স্ত্রী রত্না চট্টোপাধ্যায় ভেবেছিলেন মেয়েকে বড় করে তোলায় যেন অভাব না হয়। তাই এত জলদি বিয়ে দিয়ে দেওয়া। ১৫-১৬ বছর বয়সে সন্তান হয়ে যায়। শোতে পল্লবী ভাই বোনের এমন আরও অনেক বিষয়ই তুলে ধরেছেন।

Latest news

00

Related news