Saturday, August 6, 2022

শাকিবের ঈদের ছবি দেখতে উপচে পড়া ভিড়

হাউজফুল শো, টিকেটের জন্য লম্বা লাইন কিংবা হল চত্ত্বরে উপচে পড়া ভিড়; সিনেমা মুক্তিকে কেন্দ্র করে এমন রূপ দেখা গেল দেশের সিনেমাগুলোতে! যা করোনার কারণে গত দুই বছর দেখাই যায়নি। আবার দর্শক হলে আসছেন। বেশির ভাগ দর্শক সিনেমা হলে আসছেন শাকিব খানের টানে। ঢাকাই সুপারস্টার শাকিব খানের ‘গলুই’ ও ‘বিদ্রোহী’ দুই ছবি মুক্তি পেয়েছে এই ঈদে। ছবি দুটি নির্মাণ সংশ্লিষ্ট ও হল মালিকদের সঙ্গে মুঠোফোনে আলাপ করলে তারা জানান, শাকিব খানের টানে দুই ছবি দেখতে আসছে দর্শক। তিনি পেরেছেন দর্শকদের হলে ফেরাতে!

ঢাকার স্টার সিনেপ্লেক্সে পরিবার নিয়ে বেশি দর্শক ‘গলুই’ দেখতে আসছেন দর্শক। তারা এ ছবি দেখে মুগ্ধ হচ্ছেন। বলছেন, দীর্ঘদিন পর ভিন্ন এক শাকিব ও অন্যরকম গল্পের সিনেমা পেয়েছেন গলুইতে। তবে স্টার সিনেপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রথমদিন গলুইয়ের দর্শক বেশ ভালো ছিল। তাদের প্রত্যাশা, আরও দর্শক বাড়বে।

কেরানীগঞ্জের লায়ন সিনেমাস থেকে গলুই দেখে অনেক দর্শক শাকিব খানের নাম উচ্চারণ করে হাঁকতে হাঁকতে হল থেকে বের হচ্ছেন। কেউ কেউ আবার গলুই দেখে ছবির গান গাইতে গাইতে বের হচ্ছেন; সেই ভিডিও ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। তবে তুলনামূলক হল কম পাওয়ায় অনেক দর্শক গলুই দেখতে না পেয়ে আক্ষেপ করছেন। বাধ্য হয়ে অন্য ছবি দেখতে হচ্ছে তাদের এমন অভিযোগ করেন কেউ কেউ।

গলুই ছবি পরিচালক এস এ হল অলিক বলছেন, সবখানে গলুই খুব ভালো যাচ্ছে। শতশত মানুষ ছবি দেখে ফিডব্যাক দিচ্ছেন। বিশেষ করে জামালপুর জেলায় চুটিয়ে ব্যবসা করছে গলুই। প্রথমদিন হাউজফুলের পাশাপাশি দর্শকদের এতটাই চাপ ছিল যে নাইট শো বাড়াতে হয়েছে। শুটিং দেখতে হাজার হাজার মানুষ এসেছিল, তারা আবার হলে আসছে গলুই দেখতে।

বগুড়ার সোনিয়া হলে চলছে গলুই। দায়িত্বে থাকা সাজেদ ইসলাম রানা চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, প্রথমদিনে গলুইয়ের চারটি শোয়ের তিনটি হাউজফুল গেছে। যা আমরা কল্পনাও করিনি। অনেক দর্শক টিকেট না পেয়ে সন্ধ্যায় দাঁড়িয়ে ছবি দেখেছেন। শাকিব খানের সিনেমা বলেই এটা সম্ভব হয়েছে।এদিকে, দেশের নাম্বার ওয়ান সিনেতারকা শাকিব খানের আরেক ছবি বিদ্রোহী চলছে ঢাকার গীত, চিত্রামহল, সৈনিক ক্লাব, যশোরের মনিহার সহ দেশের ১০২ সিনেমা হলে।

সৈনিক ক্লাবের ব্যবস্থাপক জাহাঙ্গীর হোসেন চ্যানেল আই অনলাইনকে বলেন, প্রথমদিনে খুব ভালো সাড়া পেয়েছি। হাজার আসনে চার শো-এর তিনটি শো দর্শক ছিল হাউজফুলের কাছাকাছি! অনেকেই ঈদ করতে ঢাকা ছেড়েছেন তারা ফিরলে হয়ত আরও দর্শক পাবো। দর্শক উপভোগ করে ছবি দেখছেন।

সাভার সেনানিবাস হলে এই প্রথম একসঙ্গে শাকিব খানের বিদ্রোহী ও গলুই দুই সিনেমা চলছে। গার্মেন্টসকর্মী অধ্যুষিত এই অঞ্চলে প্রথম দিনে দুটি ছবি ব্যাপকভাবে দর্শক গ্রহণ করেছে বলে জানা গেছে।

হলটির দায়িত্বে থাকা বুকিং এজেন্ট মশিউর রহমান জানান, সাভার নবীনগর এলাকায় একচেটিয়া শাকিব খানের ছবি চলে৷ দর্শকদের চাওয়ার কারণে প্রতিদিন পাঁচটি শো চলছে সেনানিবাসে। দুইটি গলুই ও তিনটি বিদ্রোহী শো চলছে।

“প্রথমদিন অনেক দর্শক বিদ্রোহী দেখে আবার পরের শো-তে গলুই দেখেছে কিংবা আগে গলুই দেখলে পরে বিদ্রোহী দেখেছে। এখানে গার্মেন্টস শ্রমিকরা বেশি আসে। অনেকে ঈদে বাড়িতে গিয়েছে, তাই পরের সপ্তাহে আরো ভালো চলবে দুই ছবি।”১১০০ আসনের যশোর মনিহারে চলছে বিদ্রোহী। হলটির ব্যবস্থাপক তোফাজ্জল জানান, হাউজফুল না হলেও দর্শক ভালো ছিল। এটাই যথেষ্ট ছিল। আমরা হাউজফুলের আশাও করিনা। তাছাড়া যশোরে প্রথমদিন অনেক বেশি বৃষ্টি হয়। এতে কিছুটা দর্শক কমে যায়। তবে ছবি যেহেতু রোমান্টিক ও একশান তাই দর্শক আরো বাড়তে পারে।

বিদ্রোহীর প্রযোজক সেলিম খান জানান, সিলেট, চট্টগ্রামসহ দেশের মফস্বলের সব হল থেকে ভালো রিপোর্ট আসছে। বিদ্রোহী দেখতে মানুষ আবার সিনেমা হলে আসছে। এই প্রযোজকের দাবি, ব্যবসায়িক হিসেবের দিক থেকে ঈদের এক নাম্বার ছবি শাকিব খানের বিদ্রোহী।

সূত্র: – চ্যানেল আই অনলাইন

Latest news

00

Related news