Monday, August 15, 2022

৪০টা ছবির পরেও ‘বুম্বাদা’ আমার প্রেমে পড়লেন না! আক্ষেপ রচনার

প্রসেনজিতের সঙ্গে তার প্রেম না হওয়ার দুঃখ প্রকাশ তো করেইছেন। পাশাপাশি, টালিউড ‘ইন্ডাস্ট্রি’কে শেয়াল পণ্ডিতের সঙ্গেও অবলীলায় তুলনা করেছেন দিদি নম্বর ওয়ানের রচনা ব্যানার্জি।সেই আক্ষেপ আবার প্রকাশ্যে হাটে হাঁড়ি ভেঙেছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের সামনে। সবার সামনে রচনার দুঃখ, ‘‘বুম্বাদা আর আমি কম করে ৪০টি ছবি করেছি। তার পরেও ওর এক বারও মনে হল না, রচনার সঙ্গে একটু প্রেম করি! আমিও তো সুন্দরী নায়িকা।’

উল্টো দিকে সঞ্চালকের আসনে থাকা শাশ্বত হতবাক রচনার স্পষ্টবাদিতায়। ‘দিদি নম্বর ১’ হোক বা অন্য রিয়্যালিটি শো, রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় আসর জমাতে ওস্তাদ। কখনও দিলখোলা হাসি। কখনও সপাট জবাব। বাংলা, ওড়িয়া, বলিউডের এই নায়িকা সব ক্ষেত্রেই প্রাণবন্ত। শাশ্বতর ‘অপুর সংসার শো’-তে আমন্ত্রিত ছিলেন রচনা। সেখানেই প্রসেনজিতের সঙ্গে তার প্রেম না হওয়ার দুঃখ প্রকাশ তো করেইছেন। পাশাপাশি, বাংলা ‘ইন্ডাস্ট্রি’কে শেয়াল পণ্ডিতের সঙ্গেও অবলীলায় তুলনা করেছেন।রচনাকে তিনটি প্রাণীর নাম বলে কোন কোন তারকার পাশে প্রাণীদের নাম বসাবেন জিজ্ঞেস করেছিলেন শাশ্বত। তালিকায় শেয়াল, গাধা, মুরগি।

এক মুহূর্তের জন্য না ভেবে ‘গাধা’র তকমা দিয়েছেন যিশু সেনগুপ্তকে। স্পষ্ট দাবি, ‘‘যিশু আজ যেটা করছে সেটা বহু বছর আগেই করতে পারত। সেই ক্ষমতা ওর ছিল। কিন্তু ওকে ব্যবহার করা হয়নি। কেন করলি না যিশু?”

সঙ্গে সঙ্গে রচনার কথা সমর্থন করেন সঞ্চালকও। এর পরেই প্রশংসা করে শেয়ালের চাতুর্যের সঙ্গে তুলনা করেন প্রসেনজিতের। বলেন, ‘‘ওর মতো বুদ্ধিমান টলিউডে ক’জন আছেন? কোথায়, কী ভাবে চলতে হয় খুব ভাল জানেন।’’

 

Latest news

00

Related news